অন্যান্য

যৌতুকের জন্যে স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

যৌতুক দাবিতে মারপিট এবং গর্ভের সন্তান নষ্ট করার অভিযোগে রানীনগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জাকি আমীন টেমস (৪৭) কে আটক করেছে আত্রাই থানা পুলিশ।
 
বৃহস্পতিবার সন্ধায় আত্রাই থানা পুলিশ রানীনগর বাজার এলাকা থেকে তাকে আটক করে। আটক জাকি আমিন জেমস রানীনগর বাজারের মৃত আমজাদ মাষ্টারের ছেলে।
 
মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আত্রাই উপজেলার মহাদিঘী গ্রামের জহুরুল ইসলাম বুলুর মেয়ে জাকিয়া সুলতানা বর্নালী (৩০) ২০০২ সালে বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী রানীনগর উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জাকি আমিন টেমসের সাথে। ঠিকাদারী ব্যবসা নামে ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবিতে বর্নালীকে মারপিটসহ নানা ধরনের নির্যাতন করেন জাকি আমিন। বাধ্য হয়ে কয়েক দফায় বর্নালী পিতার বাড়ি থেকে ৮ লক্ষ টাকা এনে দেন। কিছু দিন পরেই আবারও ১০ লক্ষ টাকার দাবিতে শারীরিক ও মানষিক ভাবে নির্যাতন করে এক বস্ত্রে বাড়ী হতে বের করে দেয় এবং তালাক প্রদান করে।
 
গত ২৪/০৭/২০০৯ তারিখে নিজে ভুল স্বীকার করে পূণরায় বর্ণালীকে স্ত্রী রুপে গ্রহন করে ঘর সংসার করতে থাকাবস্থায় ঐ একই কায়দায় যৌতুকের ১০ লক্ষ টাকা দাবি করলে বর্ণালী দিতে অস্বীকার করায় গত ০৬/০৭/১৭ ইং তারিখ শারীরিক ও মানষিক ভাবে মারপিট ও নির্যাতন করে চুলের মুটি ধরে বর্ণালীর সারা শরীর ও তল পেটে সজোরে লাথি মারিলে মাটিতে পরে যায় এবং প্রবল বেগে রক্তক্ষরণ হতে থাকে। প্রতিবেশি লোকজন বর্নালীকে নওগাঁয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে দেয়। চিকিৎসায় সুস্থ হলেও গর্ভের ৩ মাসের সস্তান নষ্ট হয়ে যায়।
 
যৌতুক ও গর্ভের সন্তান নষ্টের অভিযোগে গত ২৭.০৯.১৭ তারিখে   নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল নওগাঁর নিকট জাকিয়া সুলতানা বর্ণালী মামলা করেন।
 
এ ব্যাপারে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মোবারক হোসেন জানান, আসামী জাকি আমীন টেমস কে গত বৃহস্পতিবার রাণীনগর বাজার এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে এবং গতকাল শুক্রবার তাকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রিলেটেড সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close